Author: admin

পাসপোর্ট তৈরির পদ্ধতি

হজ্জ করতে, ব্যবসায়িক কাজে, পড়ালেখার প্রয়োজনে, চাকুরির প্রয়োজনে, চিকিৎসার জন্য, ভ্রমন করতে, ঘুরতে, অবসরে বিনোদনের জন্য কিংবা অন্যান্য বিভিন্ন কাজে বিদেশে যেতে চান? সমগ্র বিশ্ব এখন হাতের মুঠোয়। আজকাল বিভিন্ন প্রয়োজনে পৃথিবীর বিভিন্ন রাষ্ট্রে ঘুরে বেড়ানো একটা সাধারণ ব্যাপারে পরিনত হয়েছে। আর এই বিদেশে যাওয়ার জন্য যে জিনিসটা আপনার প্রয়োজন তা হল পাসপোর্ট। পাসপোর্ট করা বা পাসপোর্ট তৈরি করা এক সময় ছিল খুব ঝামেলার ব্যাপার। কিন্তু সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে পাসপোর্ট তৈরির পদ্ধতিতেও আধুনিকতার ছোঁয়া লেগেছে। এখন ঘরে বসেই পাসপোর্ট তৈরির প্রথমিক ধাপ গুলো Online-এর মাধ্যমে সম্পন্ন করা খুব সহজ। এতে আমরা আমাদের সময়ের অপচয় রোধ করতে পারি। অন্য...

Read More

সাবাস বাংলাদেশ

বাংলাদেশের মানুষের মনে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিকে জাগরুক রাখতে, মুক্তিযুদ্ধে শহীদের আত্মত্যাগের প্রতি সম্মান জানাতে, তরুন প্রজম্নের মাঝে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও চেতনাকে সমুন্নত রাখতে বিভিন্ন স্থানে আমরা দেখতে পাই মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক ভাস্কর্য। মুক্তিযুদ্ধকে মহিমান্বিত করার জন্য ভাস্কর্য গুলো সমহিমায় বিরাজমান। ভাস্কর্য গুলো জনগুরুত্বপূর্ণ স্থানে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে, সরকারি স্থাপনা, গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার মোড়ে নির্মিত হয়েছে। ১৯৯১ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে শিল্পী নিতুন কুন্ডূ নির্মিত “সাবস বাংলাদেশ” একটি দৃষ্টিন্দন ভাস্কর্য। এটি এমনি একটি প্রতীকি ভাস্কর্য, যার মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধে আংশ গ্রহনকারী তরুনদের দেশপ্রেম, সরলতা, গতিময়তা, এবং মুক্তিযুদ্ধের তেজস্বী ভাব প্রকাশ পেয়েছে। নির্মানশৈলী এবং নান্দনিকতায় ভাস্কর্যটি অনবদ্য। তাৎপর্যঃ স্বাধীনতার স্মৃতিকে চির অম্লান রাখতে, এবং...

Read More

শাহ মখদুম বিমান বন্দর

নতুন কিছু সৃষ্টি বা আবিষ্কার মানুষের সহজাত প্রবৃত্তি। তাই তো মানব সভ্যতার জন্ম লগ্ন থেকে অদ্যাবধি অজানাকে জানার জন্য নিরন্তর ছুটে চলা। চাকা আবিষ্কার আদিম মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থার অগ্রগতির চাকা আধুনিক সভ্যতার দিকে ঘুরিয়ে দিয়েছিল। এরপর এলো সেই মহেন্দ্রক্ষণ! রাইট ভাতৃদ্বয় আবিষ্কার করে ফেললেন বিমান। যাতায়াত ও যোগাযোগ ব্যবস্থায় এলো বৈপ্লবিক পরিবর্তন। এখন মানুষ শব্দের বেগ, আলোর বেগে যাতায়াতের চেষ্টা করছে। স্বপ্ন দেখে মঙ্গল গ্রহে যাওয়ার। বহিবিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশও দ্রুত যাতায়াতের মাধ্যম হিসাবে আকাশ পথকেই বেছে নিয়েছে।যার ফলে ঢাকা, চট্টগ্রাম,সিলেট, রাজশাহী, যশোর, সৈয়দপুর (নিলফামারী), বরিশাল ও কক্সবাজারে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বিমান বন্দর। এসব বিমান বন্দর দিয়ে আকাশপথে আন্তজাতিক...

Read More

দেশ বিদেশে রাজশাহীর কাঁচাগোল্লা

কাঁচা নয়, গোলও নয়! বলছি রাজশাহীর বিখ্যাত কাঁচাগোল্লার কথা।কাঁচাগোল্লার নাম শোনেননি এমন লোক খুঁজে পাওয়া মুশকিল। সবাই জানে এটা একটা সুস্বাদু মিষ্টি। শুধু দেশেই নয় দেশের বাইরেও রয়েছে ব্যাপক কদর। আনুমানিক ২৫০ বছর আগে বৃহত্তর রাজশাহীর নাটোর শহরের লাল বাজারের মধুসূদন পালের মিষ্টির দোকানে ভুলক্রমে জন্ম নেয় এই মিষ্টি। তারপর শুরু হয় কাঁচাগোল্লার গৌরবময় পথ চলা। শুরুর কথাঃ কাঁচাগোল্লা সৃষ্টির পেছনে রয়েছে এক চমৎকার কাহিনী। প্রায় ১৭৫৭ সালের কথা। লাল বাজারের মিষ্টির দোকানদার মধুসূদন পালের মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার জোগাড়। কারণ সেদিন তার দোকানের বেশির ভাগ কর্মচারীই আসেনি। এতো ছানা কী হবে? ভেবেই কূল কিনারা পাচ্ছিলেন না তিনি। হটাৎ...

Read More

দিঘাপতিয়া রাজবাড়ি (উত্তরা গণভবন)

আঠারো শতকে নির্মিত দিঘাপাতিয়া মহারাজাদের বাসস্থান। দয়ারাম রায় (১৬৮০-১৭৬০) এ রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতা।নাটোর শহর থেকে প্রায় ২.৪ কিলোমিটার দূরে প্রাসাদটির অবস্থান। প্রায় তিনশ পুরানো ঐতিহাসিক দিঘাপতিয়া রাজবাড়ি বর্তমানে নাটোরের উত্তরা গণভবন নামে অধিক পরিচিত। এখন এটি ব্যবহৃত হয় উত্তরা গণভবন বা উত্তরাঞ্চলের গভর্নমেন্ট হাউজ হিসাবে। ইতিহাসঃ রাজা দয়ারাম রায় তাঁর রাজত্ব কালে প্রাসাদের মূল ভবন সহ বেশ কিছু ভবন নির্মান করেছিলেন। ষষ্ঠ রাজা প্রমদানাথ রায়ের শাষন আমলে ১৮৯৭ সালে এক প্রলয়ংকরী ভূমিকম্পে রাজ প্রাসাদটি সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে যায়। রাজা প্রমদানাথ রায় বিদেশী বিশেষজ্ঞ, প্রকৌশলী, চিত্রকর্ম শিল্পী এবং দেশীয় মিস্ত্রীদের সহযোগীতায় ১৮৯৭ সাল থেকে ১৯০৮ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ১১ বছর রাজ...

Read More
error: Content is protected !!