Author: admin

দেশ বিদেশে রাজশাহীর কাঁচাগোল্লা

কাঁচা নয়, গোলও নয়- কিন্তু নাম তার কাঁচাগোল্লা! রাজশাহীর বিখ্যাত কাঁচাগোল্লার নাম শোনেননি এমন লোক খুঁজে পাওয়া মুশকিল। সবাই জানে এটা একটা সুস্বাদু মিষ্টি। শুধু দেশেই নয়, দেশের বাইরেও রয়েছে এর ব্যাপক কদর। আনুমানিক ২৫০ বছর আগে বৃহত্তর রাজশাহীর নাটোর শহরের লাল বাজারের মধুসূদন পালের মিষ্টির দোকানে ভুলক্রমে জন্ম নেয় এই মিষ্টি! তারপর শুরু হয় কাঁচাগোল্লার গৌরবময় পথ চলা। শুরুর কথাঃ কাঁচাগোল্লা সৃষ্টির পেছনে রয়েছে এক চমৎকার কাহিনী। প্রায় ১৭৫৭ সালের কথা। লাল বাজারের মিষ্টির দোকানদার মধুসূদন পালের মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার জোগাড়। কারণ সেদিন তার দোকানের বেশির ভাগ কর্মচারীই আসেনি। এতো ছানা কী হবে? ভেবেই কূল কিনারা পাচ্ছিলেন...

Read More

দিঘাপতিয়া রাজবাড়ি (উত্তরা গণভবন)

আঠারো শতকে নির্মিত দিঘাপাতিয়া মহারাজাদের বাসস্থান। দয়ারাম রায় (১৬৮০-১৭৬০) এ রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতা। নাটোর শহর থেকে প্রায় ২.৪ কিলোমিটার দূরে প্রাসাদটির অবস্থান। প্রায় তিনশ পুরানো ঐতিহাসিক দিঘাপতিয়া রাজবাড়ি বর্তমানে নাটোরের উত্তরা গণভবন নামে অধিক পরিচিত। এখন এটি ব্যবহৃত হয় উত্তরা গণভবন বা উত্তরাঞ্চলের গভর্নমেন্ট হাউজ হিসাবে। ইতিহাসঃ রাজা দয়ারাম রায় তাঁর রাজত্বকালে প্রাসাদের মূল ভবনসহ বেশ কিছু ভবন নির্মান করেছিলেন। ষষ্ঠ রাজা প্রমদানাথ রায়ের শাষন আমলে ১৮৯৭ সালে এক প্রলয়ংকরী ভূমিকম্পে প্রাসাদটি সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে যায়। রাজা প্রমদানাথ রায় বিদেশী বিশেষজ্ঞ, প্রকৌশলী, চিত্রকর্ম শিল্পী এবং দেশীয় মিস্ত্রীদের সহযোগীতায় ১৮৯৭ সাল থেকে ১৯০৮ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ১১ বছর রাজ বাড়ি পূনঃনির্মান...

Read More

ছোট সোনা মসজিদ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ)

ছোট সোনা মসজিদ বাংলাদেশের ঐতিহাসিক ও প্রাচীনতম নির্দশনের মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। এ স্থাপনাটি প্রাচীন বাংলার রাজধানী হিসাবে খ্যাত গৌড় নগরীর অনতি দূরে পিরোজপুর গ্রামে নির্মিত। এটি ছিল মুসলিম স্থাপত্যের এক অপূর্ব নির্দশন। বর্তমানে এটি রাজশাহী বিভাগের চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ থানার অর্ন্তভূক্ত। তৈরির ইতিহাসঃ ওয়ালি মোহাম্মদ নামে এক ব্যক্তি এই মনোরম স্থাপনাটি নির্মান করেছিলেন সুলতান আলাউদ্দিন শাহ-এর শাসন আমলে (১৪৯৩-১৫১৯)। মসজিদে প্রাপ্ত এক শিলালিপিতে এই তথ্য সংরক্ষিত আছে। শিলালিপির তারিখের অংশটুকু ভেঙে যাওয়ায় এর নির্মান কাল সর্ম্পকে সঠিক কোন ধারনা পাওয়া যায়নি। তবে এর নির্মান কাজে হোসেন শাহ স্থাপত্য রীতির বৈশিষ্ট্য বিদ্যমান। নামকরনঃ মসজিদটির বাইরের দিকে সোনালী গিল্টির প্রলেপ...

Read More

ভাষা আন্দোলনে রাজশাহীর ভুবনমোহন পার্কের গুরুত্ব

পাকিস্তানি শাসক তথা শোষক গোষ্ঠী যখন এদেশ এর মার্তৃভাষা হিসেবে বাংলা কে চালিয়ে দেবার চেষ্টা করলো তখন বাংলার দামাল ছেলেরা এ সিদ্ধান্তের বিপক্ষে রুখে দাড়ায় এবং সুচনা ঘটে ভাষা আন্দোলন এর। ভাষা আন্দোলন এ অন্যতম ভূমিকা রাখে রাজশাহী অঞ্চল। ভাষা আন্দোলন এর সূত্রপাত যদিও ঢাকা তে হয়েছিল তবুও এ আন্দোলন পূর্ণতা পায় রাজশাহী বাসির সতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের ফলে। ভাষা আন্দোলন এর শহীদ দের স্মরণে তৈরী করা প্রথম শহীদ মিনার এর খোঁজ পাওয়া যায় রাজশাহী অঞ্চলে যদিও তার আয়ুষ্কাল ছিলো খুবই ক্ষিণ। এ দেশের জনতা কে উষ্কে দিতে পারে মনে করে ভেঙে দেয়া হয় এ শহীদ মিনার। পদ্মার তীরে গড়ে ওঠা...

Read More

রাজশাহীর অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যতের সাথে পদ্মা

নদীমার্তৃক দেশ বাংলাদেশ। বাংলাদেশে বয়ে চলা হাজারো বহমান নদ নদী গুলো একেকটি বিশেষ কারণে তাৎপর্যপূর্ন তবে একটি জায়গায় প্রতিটি নদীর মাঝে রয়েছে মিল আর তা হলো ইতিহাস ও ঐতিহ্য। একেকটি এলাকার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া নদী আবহমানকাল ধরে ঐ অঞ্চল এর সংস্কৃতি, ঐতিহ্য, ইতিহাস, গর্ব, লজ্জ্বা এর স্বাক্ষী হয়ে থাকে। তেমনি রাজশাহী এর বুক ভেদ করে বয়ে চলা পদ্মা নদী এ অঞ্চল এর অতীত থেকে আজ পর্যন্ত সকল ইতিহাসের স্বাক্ষী এবং এ অঞ্চল এর সংস্কৃতির সাথে, এলাকার মানুষের সাথে নিবিড়ভাবে সম্পৃক্ত। বাংলাদেশ এর অন্যতম প্রধাণ এ নদী যেমন এ অঞ্চল কে করেছে সমৃদ্ধ তেমনি কখনো কখনো তা বয়ে এনেছে...

Read More
error: Content is protected !!